আজ | রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১
Search

প্রচ্ছদ সংবাদ শিপ্রার প্রতিবেদনে পুলিশের ‘নারাজি’

shipra-debnath-1-e4e9dcc481ab106de05f81ad34eb793b1615375351.jpg
ফাইল ছবি

শিপ্রার প্রতিবেদনে পুলিশের ‘নারাজি’

৫:১৬ অপরাহ্ন, ২৪ ডিসেম্বর, ২০২০

মেজর (অব.) সিনহার সহযোগী শিপ্রা দেবনাথের বিরুদ্ধে মাদক আইনের মামলায় র‌্যাবের দেওয়া চূড়ান্ত প্রতিবেদনে ‘না রাজি’ জানিয়েছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে পুলিশের করা মাদক মামলার বাদী সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) শফিকুল ইসলাম আদালতে এই নারাজি পিটিশন দেন। পুলিশের ‘না রাজি’ আবেদন আমলে নিয়ে শুনানির জন্য দিন ধার্য করে দিয়েছে কক্সবাজারের জ্যেষ্ঠ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দেলোয়ার হোসেনের আদালত।

এর পাশাপাশি শিপ্রা দেবনাথের জামিন স্হায়ী করেছেন আদালত। শুনানি শেষে শিপ্রা দেবনাথের পক্ষের আইনজীবী এড. অরুপ বড়ুয়া তপু বৃহস্পতিবার দুপুরে এক ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান। এ সময় এই মামলার আসামি শিপ্রা দেবনাথ উপস্থিত ছিলেন।

এড. অরুপ বড়ুয়া তপু বলেন, পুলিশের করা মাদক মামলায় র‍্যাবের চূড়ান্ত প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে পুলিশ না রাজি দেওয়ায় আজ এই প্রতিবেদনের বিষয়ে কোনো আদেশ দেয়নি আদালত। চূড়ান্ত প্রতিবেদন ও না রাজি পিটিশন নিয়ে শুনানি হয়েছে। আদালত পরবর্তী ধার্য তারিখে আদেশের জন্য রেখে শিপ্রা দেবনাথের জামিন স্হায়ী করেছেন।

এদিন, বাদীর পক্ষে ‘না রাজি’ পিটিশন দিয়ে আদালতে শুনানি করেন সিনিয়র আইনজীবী মোহাম্মদ জাকারিয়া।

প্রসঙ্গত, গত ৩১ জুলাই রাতে টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ রোডে বাহারছরা পুলিশ চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খান। ওইদিন রাতে মেরিন ড্রাইভ রোডে অবস্হিত হিমছড়ি নীলিমা রিসোর্টে মেজর সিনহার রুম তল্লাশি করে সিনহার সহযোগী শিপ্রা দেবনাথকে আটক করে রামু থানার পুলিশ। এ সময় পুলিশ বেশ কিছু মাদক উদ্ধার করা হয়েছে উল্লেখ করে শিপ্রা দেবনাথের বিরুদ্ধে রামু থানায় পুলিশ বাদী হয়ে পরদিন ১ আগস্ট মাদক মামলা দায়ের করে।

পরে আদালতের নির্দেশে এই মামলা তদন্ত করে গত ১৩ ডিসেম্বর আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন র‍্যাবের তদন্তকারী কর্মকর্তা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিমান চন্দ্র কর্মকার।

আপনার মন্তব্য লিখুন